সোমবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০০৮

ঘ্রাণসঙ্গম


বিভক্ত ঘ্রাণে মজে গেছে নাসা
শুঁকে শুঁকে সুরসন্ধানে - রক্তে টানি নির্যাস
পাপবোধ ফুরোলে রাতের আগমন,
আমি আস্বস্ত হই।


শশব্যস্ত আলস্যে ঘুমকণারা মাথা পাতে
খুব নিচু এক কাঠবাদামের পাশে
শীতলস্থানে ডাক পড়ে, তখনই
দেখি কুণ্ডলীপাকে জড়িয়ে এক তরুণী
আমার লোমকূপে খুব দ্রুত বিঁধে যায়।
ঠা ঠা হাসে বিদ্রুপী চাঁদ!
কার্ণিশে চড়ুইয়েরা নিবিড় হয়ে এলে
মসলিন-আকাশে জমে কিছু খয়েরী-মেঘ
রোঁয়া ফুলিয়ে ছোটে দিগ্বিদিক; শুঁয়োপোকা!


তরুণী প্রবেশ করলে, দেহজুড়ে ফাটল
বর্ষা-খাল-নদী-কালভার্ট-বোল্ডার
হাতুড়ি নেমে এলে ভাঙে সব-
বর্ষা।
খাল।
নদী।
কালভার্ট।
বোল্ডার।
সবুজে উড়ছে তখনও হিরোশিমা-ছাতা!


ঘ্রাণে আমি সুতো ছাড়লেই
তরুণী নেমে নেমে রক্তে মিশে যায়।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

এই গ্যাজেটে একটি ত্রুটি ছিল