সোমবার, ১৪ জুলাই, ২০০৮

আলোর কণিকারা আর তুমি

তোমাকে ভেবে ভেবে কাটালাম একটা আস্তদুপুরবিকেল
আলোর ঝাঁ ঝাঁ তীর নরম হতে হতে যখন
তোমার গালের রঙের মত পেলব হয়ে এলো,
আমি বাইরের রোদে গা ভাসিয়ে ঊৎসর্গ করলাম
সূর্যের অজস্রকণাগুলো, পাহারা দিবে তারা তোমাকে ঘিরে
সব বাজে শয়তানদের ভাগিয়ে দিবে দুদ্দাড়!
এজন্য তোমাকে নিয়ে ভাবি শুধু দুপুরে আর বিকেল জুড়ে
সকালের আলো শিশুর মত, তোমাকে বাঁচাতে দরকার
সৈন্য-সামন্ত ঝন্‌ঝনে ঝিকিমিকি রোদ্দুর।


তোমাকে এই তুচ্ছ আবেগ হলদে কথারা ছুঁবে না জানি
জানলে তুমি হেসে দিবে ঠিক, ফিক করে,
শক্ত মাটিতে পা তোমার, চপ্পলে আর কতটুকু বাঁচে?
আমি শুধুই অপার্থিব স্বপ্ন বুনি, ঐ সোনালি আলো
তোমার চারপাশে যাদের বিচরণ, তাদের নিয়ে আমি
নবম সিম্ফোনির অধিক মধুর সুর বুনি, তাঁতীর একাগ্রতায়
শব্দের পিঠে যুতসই শব্দ খুঁজি, পরপর বসিয়ে যাই বিনা কারণে।


তোমার আমার চোখের সব আলো নিভে যাবে একদিন,
বুড়োটে চামড়ার নিচের ধমণীগুলো থেমে যাবে
শুধু এই শব্দরাশিরাশি তোমায় আলতো ছুঁয়ে ছুঁয়ে
তখনও ঘুরে বেড়াবে আজীবন।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

এই গ্যাজেটে একটি ত্রুটি ছিল